অন্যরকম এক ভালোবাসার গল্প!

অন্যরকম এক ভালোবাসার গল্প রচনা করলো এক পেঙ্গুইন। পাখিটি ৫ হাজার মাইল সাঁতার কেটে তার জীবন রক্ষাকারী মানুষটির কাছে ছুটে আসে প্রতি বছর। ঘটনাটি ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিও শহরের পাশেই নির্জন দ্বীপে।
পেঙ্গুইনটির ভালোবাসার মানুষ হচ্ছে সেই দ্বীপের বাসিন্দা। তার নাম জাও পেরেরা। তিনি পেশায় জেলে।
২০১১ সালে ছোট্ট একটা প্রায় মৃত পেঙ্গুইনকে সারা গায়ে তেল মাখা অবস্থায় বিচ থেকে উদ্ধার করেন তিনি। জাও পেঙ্গুইনটিকে বাড়ি নিয়ে গায়ের তেল পরিষ্কার করে খাবার খাইয়ে সুস্থ করার চেষ্টা করেন। তিনি এ সময় পেঙ্গুইনটির নাম রাখেন ‘ডিমডিম’।
এরপর ধীরে ধীরে পেঙ্গুইনটি সুস্থ হয়ে উঠতে থাকে। সাতদিন পর পেঙ্গুইনটি একটু সুস্থ হয়ে উঠলে তাকে সাগরে ছেড়ে দেন। এ সময় অবাক হয়ে জাও পেরেরা দেখেন পাখিটি তাকে ছেড়ে যাচ্ছে না। সে থেকে যায় পেরেরার কাছে। অবশ্য ১১ মাস পর হঠাৎ একদিন পেঙ্গুইনটি গায়েব হয়ে যায় কিন্তু কয়েক মাস পরেই পেঙ্গুইনটি আবার ফিরে আসে পেরেরার কাছে।
পরে জানা যায়, প্রজননের জন্য পেঙ্গুইনটি আর্জেন্টিনা, চিলি, কোস্টারিকা চলে যায়। যা পেরেরার বাড়ি থেকে ৫০০০ কি.মি. দূরে। এ ভাবেই প্রতি বছর ডিমডিম প্রজনন শেষে পেরেরার কাছে ফিরে আসে। পেরেরা জানিয়েছে ডিমিডিম তার সন্তানের মতই, এবং পাখিটি এখন তার পরিবারেরই সদস্য।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open