মুক্তির পর যা বললেন সঞ্জয় দত্ত

পাঁচ বছর সাজা ভোগ করার পর পুনের ইয়েরওয়াড়া কারাগার থেকে বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে মুক্ত হয়েছেন বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। মুক্তির পর সঞ্জয় বলেন, ভক্তদের ভালোবাসাতেই মুক্তির স্বাদ নিতে পারছেন। তাঁর মুক্তির পথ সহজ ছিল না বলে জানান তিনি।
আজ থেকে সঞ্জয় স্বাধীন, মুক্ত। আর দশজনের মতোই স্বাভাবিক জীবনযাপন করবেন তিনি। কারাগার থেকে বের হওয়ার সময় পাশে ছিলেন স্ত্রী মান্যতা দত্ত। প্রথমেই মুম্বাইয়ের বিখ্যাত সিদ্ধিবিনায়ক মন্দিরে যাবেন সঞ্জয়। এর পর মেরিন লাইনে মা নার্গিসের কবরে যাবেন। সেখান থেকে বাড়ি ফিরবেন। বলিউডের প্রয়াত দুই তারকা সুনীল দত্ত ও নার্গিসের পুত্র সঞ্জয় ১৯৯৩ সালে মুম্বাইয়ের ধারাবাহিক বিস্ফোরণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত হন। কারাদণ্ড ভোগ করেন প্রায় পাঁচ বছর। মাঝে অবশ্য তিনি কয়েকবার প্যারোলে মুক্তি পেয়েছিলেন।
কারাভোগের সময় ভালো ব্যবহার করায় প্রতি মাসে সঞ্জয়ের সাজা থেকে আট দিন করে মোট ২৫৬ দিন কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।
সশ্রম সাজাভোগের কারণে এত দিন তিনি কারাগারে কাগজের ব্যাগ তৈরি করেছেন। কারাগার থেকে বের হওয়ার সময় এই শ্রমের মূল্য হিসাবে ৪৪০ রুপি তুলে দেওয়া হয় সঞ্জয়ের হাতে। কারাগারের বন্দীরা তাঁকে বিদায় সংবর্ধনা জানান। ২০০৭ সালে সঞ্জয় দত্তকে ছয় বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পরে সুপ্রিম কোর্টে আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৩ সালে তাঁর কারাদণ্ডের মেয়াদ কমিয়ে পাঁচ বছর করা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open