এবার কেজরিওয়ালের মুখে কালি দিল এক নারী

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে আম আদমি পার্টির আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের মুখে কালি ছুড়ে মেরেছেন এক নারী। দিল্লির পরিবেশ দূষণ রোধে গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে কেজরিওয়ালের ‘জোড়-বিজোড়’ তত্ত্ব বাস্তবায়ন করায় স্থানীয়দের ধন্যবাদ জানাতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এর আগেও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গায়ে কালি ছুড়েছে লোকজন। ট্যাক্সি চালকের চড়ও খেতে হয়েছে তাকে। বিজেপি সমর্থকরা একবার ডিম ছুড়েছিল তার গাড়ি লক্ষ্য করে। তবে সেগুলো ছিল নির্বাচনী প্রচারণার সময়। মুখমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে এবারই প্রথম এ ধরনের পরিস্থিতির সম্মুখীন হলেন কেজরিওয়াল।
মঞ্চে উঠে বক্তব্য দেয়ার সময় হঠাত্‍ করেই‌ এক নারী নিরাপত্তাবলয় ভেদ করে কালি ছুড়ে মারেন তার মুখে। কালির ছিটা কিছুটা কেজরিওয়ালের মুখেও লাগে। ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ ওই নারীকে আটক করলেও চিরাচরিত ’গান্ধীগিরি’ পন্থায় কেজরিওয়াল নিরাপত্তারক্ষীদের বলেন, ওকে ছেড়ে দিন। যখনই দিল্লিতে ভালো কিছু হয়, এ রকম ঘটনা ঘটে।
ওই নারীর নাম ভাবনা বলে জানা গেছে। তিনি আম আদমি পার্টির পাঞ্জাব ইউনিটের সদস্য। এ ঘটনার জন্য ক্ষমতাসীন বিজেপিকে অভিযুক্ত করেছেন কেজরিওয়াল। অনুষ্ঠান শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দিল্লি পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়নি। এটা বিজেপির ষড়যন্ত্র।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open