বৃদ্ধা শাশুড়িকে নির্মম ভাবে পেটালো গুনধর পুত্রবধূ

ভারতের উত্তরপ্রদেশের বিজনোরে একটি বাড়িতে ৭০ বছর বয়সী এক শাশুড়িকে নির্মমভাবে পিটিয়েছে তাঁর পুত্রবধূ। গত ৫ জানুয়ারি এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার নারীর নাম রাজরানী জৈন। আর নির্যাতনকারী পুত্রবধূ সংগীতা জৈন।  শাশুড়িকে নির্যাতনের ভিডিওটি সম্প্রতি প্রচার হয় সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে। এতে তোলপাড় হয় ভারতজুড়ে। ওই ঘটনায় দায়ের করা একটি মামলায় স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালে গ্রেপ্তার করা হয়েছে সংগীতা জৈনকে।
এনডিটিভির খবরে বলা হয়, নিজ বাড়িতে রাজরানীকে প্রায়ই মারধর করতেন সংগীতা। বিষয়টি জানতেন তাঁর স্বামী। তাই সম্প্রতি মায়ের ওপর নির্যাতনের দৃশ্য ধারণ করতে বাড়িতে একটি ক্লোজড সার্কিট টেলিভিশন (সিসিটিভি) স্থাপন করেন সংগীতার স্বামী সন্দীপ কুমার জৈন।
ওই সিসিটিভিতে ধারণ করা ৫ জানুয়ারির ফুটেজে দেখা যায়, বৃদ্ধ এক নারী বিছানায় ভয়ে জড়োসড়ো হয়ে আছেন। তাঁকে চড়, লাথি মারা হচ্ছে। মারধরের একপর্যায়ে শাশুড়িকে শ্বাসরোধেরও চেষ্টা করেন সংগীতা।
মারধরের শিকার রাজরানী জৈন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সে (পুত্রবধূ) রান্নাঘর থেকেই এসেই আমাকে চড় মারতে থাকে। সে আমাকে ইট দিয়েও মারে…আমি জানি না, সে কী জন্য এটা করেছে।’
সাত বছর ধরে সংগীতার সঙ্গে সংসার করছেন সন্দীপ। এ সময়ে নানা নির্যাতনের অভিযোগে সম্প্রতি একটি মামলা করেন সংগীতার স্বামী। তাঁর সঙ্গে সন্দীপের বিচ্ছেদের প্রক্রিয়াও চলমান আছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open