সিলেটে দুর্বৃত্তদের হাতে বনফুলের দুই কর্মী খুন, আহত ১

সিলেট শহরতলির খাদিমপাড়া বিসিকি শিল্প এলাকায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খাদ্যসামগ্রী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বনফুল এন্ড কোং-এর দুই কর্মী খুন হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বিসিক এর অভ্যন্তরে বনফুলের কারখানার সামনে এ ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত আরও এক কর্মীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হামলাকারীরা একটি মাইক্রোবাসে করে এসে হামলা করে দ্রুত পালিয়ে গেছে।
নিহতরা হলেন- চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ দরদাহের হারুনুর রশীদের ছেলে মো. রাজু (১৯) ও শরীয়তপুর জেলার বাসিন্দা তপু মিয়া (২৫)। হামলায় গুরুতর আহত রাসেল আহত রাসেল আহমদ (২২) সিলেটের দক্ষিণ সুরমার বাসিন্দা। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
বনফুলের কর্মচারী হারুন জানান, সন্ধা ৭টার দিকে আমরা চিৎকার শুনে কারখানার সামনে এসে দেখি রাজু ও টাকুর মরদেহ পড়ে আছে। আর রাসেলের শরীর থেকে রক্ত বেরোচ্ছে। তিনি জানান, হামলাকারীরা সংখ্যায় ছিলো প্রায় ১০ জন। তারা মাইক্রোবাসে করে এসেছিলো।
কী কারণে ও কারা হামলা চালিয়েছে এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি হারুন। তবে তিনি জানান, শুনেছি হামলাকারীরা রাসেলকে মারতে এসেছিলো। রাসেলকে বাঁচাতে রাজু ও টাকু এগিয়ে যায়। এসময় হামলাকারীরা এই দু’জনকেও ছুরিকাঘাত করে।
খাদিমপাড়ার গুচ্ছগ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান আল মামুন খসরু বলেন,‘ বিষয়টি সম্পর্কে বনফুল এলাকাবাসীকে কিছুই জানায়নি। যে কারণে হামলাকারীদের ব্যাপারে অথবা ঘটনার সম্পর্কে কেউ কিছু বলতে পারছে না। তবে, বোঝা যাচ্ছে এটা বনফুলের ভেতরের বিরোধ।’
এ ঘটনা সম্পর্কে খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম বেলাল বলেন,‘ আমরা ঘটনাস্থলে। ঠিক কী কারণে দুর্বৃত্তরা হামলা করে দুজনকে খুন করলো স্পষ্ট নয়। তবে, বনফুলের অভ্যন্তরীণ কোনো কোন্দলে এ খুন হতে পারে বলে আমাদের ধারণা। ঘটনাস্থলে র‌্যাব-পুলিশ মোতায়েন। এলাকাবাসীও বোঝার চেষ্টা করছেন ঘটনার রহস্য। ’
শাহ্পরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে পাঠিয়েছে। খুনিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ। কে বা কারা এবং কেন এই হামলা চালিয়েছে তা জানা যায়নি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বিসিক এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’
র‌্যাব-৯ এর এএসপি মোহাম্মদ ইউনুস বলেন,‘ ঘটনার রহস্য এখনো জানা যায়নি। র‌্যাব ঘটনাস্থলে গেছে। হামলার কারণ ও খুনিদের সম্পর্কে তথ্য নেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open