বান্ধবীকে ধর্ষণ করিয়ে ভিডিও অনলাইনে ছাড়ল দুই বান্ধবী! (ভিডিও সহ)

খবরটি প্রথমবার শোনার পর বিশ্বাসই করতে পারেনি অভিযুক্তদের পরিবার। এমনকি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তারাও প্রথমে বিশ্বাস করতে চাননি এই ঘটনা। কিন্তু সত্য এতটাই নির্মম এবং ভয়ংকর যে তা অবশেষে সামনে এলো- এভাবেই এক কিশোরী ধর্ষণের মামলার ঘটনার সত্যতা এনডিটিভির সাংবাদিকদের কাছে বর্ণনা করেন উত্তরপ্রদেশের পুলিশের আইজি মুতহা অশোক জৈন।
পুলিশ কর্মকর্তা অশোক জৈন জানান, বান্ধবীকে তারই বাড়িতে এক যুবককে দিয়ে ধর্ষণ করিয়েছে দুই স্কুলছাত্রী। ধর্ষণের পুরো সময় সেখানে দাঁড়িয়ে থেকে মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ভিডিও করে অনলাইনে ছাড়ে তারা।
উত্তরপ্রদেশের বেরেলির শেরগড় এলাকায় গত ১৮ ডিসেম্বর ঘটনাটি ঘটে। অভিযুক্ত দুই স্কুলছাত্রী ও যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
দুই স্কুলছাত্রীর করা ভিডিওর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, দুই বান্ধবীর সাথে যুবকটি প্রথমে ওই কিশোরীর ঘরে ঢোকে। এরপর একটি দেশি পিস্তল দিয়ে ওই কিশোরীকে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত যুবক। আর পাশে দাঁড়িয়ে গোটা ঘটনার ভিডিও করে দুই স্কুলছাত্রী। তারপর নির্যাতিতা জ্ঞান হারালে অভিযুক্তরা চলে যায়। এখানেই শেষ নয়। এরপর গত ২০ ডিসেম্বর সেই ভিডিও অনলাইনে ছাড়ে তারা।
ওই ধর্ষণের ঘটনাটির ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর প্রতিবাদে সরব হন বেরেলিসহ উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দারা। এরপর তদন্তে নেমে গত শনিবার অভিযুক্ত দুই স্কুলছাত্রীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের পর ওই দুই স্কুলছাত্রী জানায়, পরিচিত এক ‘আংকেলকে’ দিয়ে ‘যৌন রোমাঞ্চের’ জন্য বান্ধবীকে ধর্ষণ করিয়েছে তারা। এরপর গত শুক্রবার ওই ‘আংকেলকে’ গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
এরপর গতকাল শনিবার এই তিনজনকেই আদালতে হাজির করা হয়। এরপর অভিযুক্ত যুবককে কারাগারে আর অপর দুই কিশোরীকে কিশোর সংশোধনাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open