গাপটিলের তান্ডবে বিধ্বস্ত শ্রীলঙ্কা

সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে মাত্র ১১৭ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর গাপটিলের ৩০ বলে অপরাজিত ৯৩ রানের ঝোড়ো ইনিংসে ১০ উইকেটের বিশাল জয় পেয়েছে নিউজিল্যান্ড।
ক্রাইস্টচার্চে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে এদিন চার-ছক্কার বৃষ্টি ঝরিয়েছেন গাপটিল। লঙ্কান বোলারদের পিটিয়ে ছাতু বানিয়ে ৩০ বলে ৯৩ রানের ইনিংস খেলার পথে তিনি ফিফটি ছুঁয়েছেন মাত্র ১৭ বলে, যা ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানের দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড। গাপটিল ভেঙে দিয়েছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ১৮ বলে ফিফটির আগের রেকর্ডটি।
এ ছাড়া গাপটিলের ১৭ বলে ফিফটি ওয়ানডে ইতিহাসেই যৌথভাবে দ্বিতীয় দ্রুততম। সমান বলে ফিফটি আছে শ্রীলঙ্কার কুশাল পেরেরা ও সনাৎ জয়সুরিয়ার। আর দ্রুততম ফিফটির রেকর্ডরা এবি ডি ভিলিয়ার্সের দখলে। এ বছরের জানুয়ারিতে জোহানেসবার্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডের দ্রুততম সেঞ্চুরির (৩১ বলে) রেকর্ড গড়ার পথে ১৬ বলে ফিফটি করেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার এই ব্যাটসম্যান।
ব্যাটিং ব্যর্থতার প্রদর্শনী দেখিয়ে ২৭.৪ ওভারে মাত্র ১১৭ রানেই অলআউট লঙ্কানরা। দলের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি ১৯, নুয়ান কুলাসেকারার।
নিউজিল্যান্ডের দুই পেসার ম্যাট হেনরি আর মিচেল ম্যাকগ্লেনাঘানের বোলিংয়ে বিধ্বস্ত হন লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। হেনরি ৩৩ রানে ৪টি আর ম্যাকগ্লেনাঘান ৩২ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। একটি করে উইকেট গেছে ডগ ব্রেসওয়েল ও ইশ সোধির দখলে।
মাত্র ১১৭ রানের পুঁজি নিয়ে খেলতে নেমে এক গাপটিলের ব্যাটিংয়ের সামনেই স্রেফ উড়ে গেছে শ্রীলঙ্কা। গাপটিলের ৩০ বলে অপরাজিত ৯৩ রানের ঝোড়ো ইনিংসে ২৫০ বল আগেই ১০ উইকেটের জয় তুলে নেয় স্বাগতিকরা। গাপটিলের অপরাজিত ৯৩ রানের ইনিংসে ছিল ৮টি ছক্কা ও ৯টি চারের মার। তার উদ্বোধনী সঙ্গী টম লাথাম অপরাজিত ছিলেন ২০ রানে। ১০০ ওভারের ম্যাচ (দুই ইনিংস মিলে) স্থায়ী হয় মাত্র ৩৬ ওভার!
গাপটিল তার বিধ্বংসী ইনিংস খেলার পথে লঙ্কান পেসার দুশমন্ত চামিরার এক ওভারে ২৭ ও স্পিনার জেফরি বান্দারসায়ের এক ওভারে ২৬ রান তোলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open