‘আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায়নি, বরং তারা চেয়েছিল অখণ্ড পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রিত্ব’

’আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের স্বাধীনতা চায়নি, বরং তারা চেয়েছিল অখণ্ড পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রিত্ব।’ – এমন মন্তব্য করে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, আওয়ামী লীগ এখন নানা ধরনের মুক্তিযোদ্ধা তৈরি করছে। সবই লোক দেখানো। যারা ক্ষমতাসীন আছে, দেশের প্রতি তাদের কোনো মায়া নেয়, দায়িত্ব নেই। এরা কোনো দিন স্বাধীনতা চায়নি, চেয়েছে ক্ষমতা। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিল। স্বাধীন বাংলাদেশ চায়নি। জিয়াউর রহমান যদি স্বাধীনতার ঘোষণা না দিতেন, তাহলে মুক্তিযুদ্ধ হতো না।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সোমবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারস ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধাদের এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপির অন্যতম অঙ্গসংগঠন জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল এর আয়োজন করে।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সঠিক কথা লেখায় এ কে খন্দকারকে তার লেখা বই প্রত্যাহার করে নিতে চাপ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তিনি বলেছেন, আমি সত্য কথা লিখেছি। বই প্রত্যাহার করে না নেওয়ায় তার নামে মামলা দিয়ে তাকে হয়রানি করা হচ্ছে। সত্যি কথা শুধু তিনি নন, তাজউদ্দীন আহমেদের মেয়েও লিখেছেন।

মুক্তিযুদ্ধের পর তৎকালীন সময়ে দেশ পুনর্গঠনের জন্য যেসব বৈদেশিক সহায়তা এসেছিল, তখনকার সরকার তা নিজেদের লোকের স্বার্থে ব্যবহার করেছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open